টিআরপি দৌড়ে বাংলা সিরিয়াল

টিআরপি দৌড়ে বাংলা সিরিয়াল

বৈঠকখানা ডেস্কঃ টিভি ধারাবাহিক ঘিরে চ্যানেলে চ্যানেলে অলিখিত যুদ্ধ চলতেই থাকে। ‘আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়’ রেটিং চার্টে প্রথম দশে জায়গা করে নিলেও ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে অনেকেই। ধারাবাহিকতা ধরে রেখে ‘মিঠাই’ আবারও সেরা। সে পেয়েছে ১১.২ নম্বর। ৯ পেয়ে তৃতীয় ছেড়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে দেবশ্রী রায়ের ‘সর্বজয়া’। ৮.৪ পেয়ে জায়গা বদলে তৃতীয় স্থানে ‘অপরাজিতা অপু’। এ সপ্তাহে বেশ কিছু দিন পরে প্রথম পাঁচে উঠে এসেছে ‘খড়কুটো’। ৮.৩ পেয়ে চতুর্থ স্থান তার দখলে। পঞ্চম স্থানের দাবিদার দুটো ধারাবাহিক। যুগ্ম ভাবে ৭.৮ পেয়ে এই স্থানে ‘ধুলোকণা’ আর ‘যমুনা ঢাকি’। একই ভাবে নবম স্থানেও দু’টি ধারাবাহিক। ‘শ্রীময়ী’ এবং ‘কড়ি খেলা’।

টিআরপি তালিকায় দ্বিতীয় স্থান দখল করে রয়েছে ‘সর্বজয়া’। সম্প্রচারের মাত্র সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই টিআরপির তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ‘সর্বজয়া’। বিত্তশালী পরিবারের বউ হওয়া সত্ত্বেও মাটিতে পা রেখে চলেন জয়া।খুব সাধাসিধে মানসিকতার এক ব্যক্তিত্ব। সাংসারিক জটিলতার মধ্যেও তিনি সরলভাবে জীবনযাপন করেন। আর সেই ধারণা নিয়েই ধারাবাহিকে বাজিমাত করছেন দেবশ্রী রায়।

যদিও সর্বজয়ার তালের বড়ার প্রোমো ঘিরে নেটিজেনদের কটাক্ষের শেষ নেই। কারও কারও মন্তব্য, অনেক মহিলারাই বাড়িতে তালের বড়া তৈরি করেন, তা নিয়ে এক বাড়িয়ে চড়িয়ে দেখানোর কী রয়েছে! এই প্রথম নয়, শুরুর আগে থেকেই এই ধারাবাহিককে নানা কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে। এমনকি অনেকে ‘শ্রীময়ী’-র অনুসরণে তৈরি বলেও উল্লেখ করেছিলেন। কিন্তু সম্প্রচার শুরুর পর থেকেই ধারাবাহিক দেখে দর্শকদের মত বদলাতে থাকে।

অন্যদিকে জি বাংলায় ‘রিমলি’ সিরিয়ালটি যারা নিয়মিত দেখছেন তারা আগামী ১৩ই সেপ্টেম্বর থেকে সন্ধ্যা ৬-টার বদলে দেখতে পাবেন রাত ১১.৩০-টায়। আগামী সপ্তাহ থেকে জি বাংলায় শুরু হচ্ছে ‘উমা’, এটি দেখা যাবে ‘কৃষ্ণকলি’র জয়গায়। তাই চ্যানেল কর্তৃপক্ষ ‘কৃষ্ণকলি’কে সন্ধ্যা ৬-টা এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। প্রসঙ্গত, হাজার পর্ব পার করেও ‘কৃষ্ণকলি’ টিআরপি তালিকায় উপরের সারিতেই রয়ে গিয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেওশ্যামা-নিখিলদের নিজেদের স্লট ছাড়তে হচ্ছে। অন্যদিকে ‘রিমলি’কে সরে আসতেহচ্ছে বেশি রাতের স্লটে।

আসলে জি বাংলায় ‘রিমলি’-র টিআরপি বেশ কমজোরি। তাই এই সিরিয়াল বেশিদিন টেনে নিয়ে যেতে চায় না চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই ‘রিমলি’ শেষ হওয়ার খবর জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

administrator

Related Articles